Wednesday, July 28, 2021
Homeখেলাধুলাব্রেকিং নিউজঃ কলকাতা ও মুম্বাইয়ের ম্যাচ ফিক্সিং হয়েছে!

ব্রেকিং নিউজঃ কলকাতা ও মুম্বাইয়ের ম্যাচ ফিক্সিং হয়েছে!




এভাবেও হেরে যাওয়া যায়! আইপিএলে মঙ্গলবার মুম্বাইয়ের বিপক্ষে কলকাতার নাটকীয় হার দেখে হয়ত সবার মনে এই কথাটাই আসবে। কেননা উইকেটে থেকেও যখন রাসেল-দিনেশ কার্তিকরা দলকে জেতাতে পারেননা সেটাও আবার বলের সমান রানে, তখন নিশ্চয়ই সেটা অবিশ্বাস্যই মনে হবে। আর সেটাই ঘটেছে আইপিএলের পঞ্চম ম্যাচে।

দীনেশ কার্তিক ১১ বলে ৮ রান স্ট্রাইক রেট ৭২ , টি টোয়েন্টি তো দূরে থাক এটা বর্তমান ওয়ান ডে স্ট্রাইক রেট ও না , অ্যান্ড্রু রাসেল তো আরো বিস্ময় দেখালেন ১৫ বলে ৯ স্ট্রাইক রেট ৬০।

কলকাতার জিতা ম্যাচ এই ভাবেই অভিনয় করতে গিয়ে হেরে গেল। দুই জনেই সেরা ফিনিশার হিসেবে সুখ্যাতি আছে কিন্তু একই দিনে এই ভাবে ফ্লপ কল্পনাই করা যায় না।

আগে ব্যাট করতে নেমে ১৫২ রানে অলআউট হয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। জবাবে ব্যাট করতে নামা কলকাতার শেষ পাঁচ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৩১ রান। ১৬ তম ওভারের দ্বিতীয় বলে সাকিব যখন ৯ বলে ৯ রান করে আউট হন তখন প্রয়োজন ছিল ২৮ বলে ৩১ রানের। ক্রিজে ছিলেন আন্দ্রে রাসেল এ দিনেশ কার্তিক।

দুজনের জুটু ভাঙে ইনিংসের শেষ ওভারে। এতে হয়ত অনেকেই ভাববেন ম্যাচ ততক্ষণে জিতেছে নাইটরা। কিন্তু না এদিন ব্যাট হাতে কলকাতাতে যেন ডুবিয়েছেন কার্তিক ও রাসেল। বার বার ব্যাট বদল করলেও কোনমতেই টাইমিং মেলাতে পারছিলেন না দুজনের কেউই।

দুইবার জীবন পেয়েও ১৫ বলে ৯ রান করে রাসেল। যেখানে ১ টি বাউন্ডারি সেটিও ফ্রি হিট থেকে।অন্যদিকে দিনেশ কার্তিক ১১ বলে ৮ রানে অপরাজিত থেকেও দলকে জেতাতে ব্যর্থ হন। দুজনের টেস্ট মেজাজে ব্যাটিংয়েই ডুবে যায় কলকাতা। ৩ উইকেট হাতে থাকলেও ১৪২ রান তুলতে সক্ষম হয় নাইটরা।

অথচ শুরুটা দারুণ করেছিলেন দুই ওপেনার শুভমান গিল ও নিতিশ রানা। একটা সময় মনে হচ্ছিল যেন দশ উইকেটেই জিতে যাবে কলকাতা। ৭২ রানের দারুণ জুটির পর ৩৩ রান করে ফেরেন গিল। আর এই ম্যাচেও ফিফটি তুলে নিয়ে ৫৭ রান করে ফেরেন নীতিশ রানা। দুই ওপেনারের পর আর কেউই দুই অঙ্কের ঘরে পৌছতে পারেননি।

ম্যাচ শেষে সোশ্যাল মিডিয়া চাওর হয়েছে আইপিলে কি কলকাতা ও মুম্বাইয়ের ম্যাচ ফিক্সিং হয়েছে ? যদিও ম্যাচ ফিক্সিং এর জন্য আইপিল ইতিপূর্বে অনেক বিতর্ক তৈরী করেছে। কলকাতার ফ্যানরা এই ম্যাচ এই ভাবে হেরে যাওয়াটা মানতে পারছেন না তারা নিচিন্তে বলে দিচ্ছেন বাহ্ চমৎকার একটি ফিক্সিং ম্যাচ উপহার দেওয়ার জন্য।

খেলায় হার জিত থাকে এমনকি ম্যাচ ফিক্সিং হয় তবে এই ম্যাচ ফিক্সিং কিনা তা জানতে হলে আইপিএল টুর্নামেন্ট শেষে জানা যাবে। এর আগের আইপিলের ফিক্সিং গুলো টুর্নামেন্টর পর এমনকি ২/৩ মাস পর এর সততা নিচ্চিত হয়।




RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments